Thursday, January 01, 2009

মোবাইল ব্যবহারে ঝুঁকি কমান

মোবাইল ফোন তাপ ও রশ্মি বিকিরণ (radiation) করে। কিন্তু কেউই সঠিকভাবে নির্ণয় করতে পারেনি কতটুকু ব্যবহারে মোবাইল ফোন ব্যবহার ঝুঁকির সমতুল্য।
এই যন্ত্রটি আবিষ্কারের কিছু বছরের মধ্যেই এটি খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠে। ধারণা করা হয় আর এক দশকের মধ্যেই মোবাইল ফোন ব্যবহারের জন্য ক্যান্সার মানুষের মাঝে ধরা পড়বে। অনেকে বলেন এ নিয়ে চিন্তার কোনো কারণ নেই। আবার অনেকে বলেন মস্তিষ্কে টিউমারের মতো মহামারীও মানুষের মাঝে ছড়িয়ে যেতে পারে।
এই যন্ত্রটি এখন এতটাই আমাদের জীবনে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত যে একে ছাড়া আমাদের অনেকের চলেই না। তাহলে এটি ব্যবহার কি বন্ধ করে দেব? না। যতক্ষণ পর্যন্ত এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট কোনো প্রমাণ মিলছে না বা এর বিকল্প কিছু বের হচ্ছে না, ততক্ষণ পর্যন্ত কিছু নিরাপদ পন্থা অবলম্বন করা যেতে পারে যা এটি ব্যবহারে আমাদের কিছুটা হলেও ঝুঁকির মাত্রা কমাবে।

ঝুঁকি কমাতে নিচের ৫টি টিপস আপনাদের কাজে দিতে পারে:

(১) স্পীকারফোন ব্যবহার করুন
বিনা প্রশ্নে এটি হচ্ছে বিশেষজ্ঞদের মতে সবচেয়ে উত্তম বিকল্প। কোনোকিছুই আপনার মাথার কাছাকাছি থাকছে না। কিছু ইঞ্চির ব্যবধান দূরত্বে রাখুন এটিকে। এক ফুট বা দুই এক্ষেত্রে আরো উত্তম। যত দূরে রাখা যায় তত তাপ বা রশ্মির ঝুঁকি কমে। প্রতি দুই ইঞ্চি দূরত্বে থাকা মোবাইল ঝুঁকি কমায় চারগুণ করে। প্রতি চার ইঞ্চি দূরত্বে রাখলে ঝুঁকি কমে ষোলগুণ। অর্থাৎ, "প্রতিটি মিলিমিটার এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ"।

(২) ব্যবহার করুন একটি ফেরিট গুটিকা (ferrite bead) দ্বারা তৈরি তারযুক্ত হেডসেট
ফেরিট গুটিকা হচ্ছে একটি ক্লিপ যা একটি হেডসেটের তারে লাগানো হয়। সমস্যার কথা হলো, তার নিজেই আপনার কানে রশ্মি/তাপ প্রেরণ করে। এই গুটিকা ডিজাইনই করা হয়েছে যাতে এটি রশ্মি/তাপ চুষে নিতে পারে আর আপনার কান যেন থাকে সুস্থ। অবশ্য, যদি ফোনটি আপনার পকেটে থাকে বা বেল্টের সাথে লাগানো থাকে, সেক্ষেত্রে রশ্মি/তাপ আপনার শরীরে সরাসরি প্রবেশ করবে। সুতরাং, আপনি যদি রশ্মি/তাপ-এর ব্যাপারে চিন্তিত হন, ফোনকে যতটা দূরে সম্ভব রাখা যায় রাখুন এবং নিশ্চিত হউন তার আপনার শরীর যেন ছুঁয়ে না থাকে।

(৩) একটি ব্লুটুথ কানের পিস (bluetooth earpiece) ব্যবহার করুন
যদিও একটি ব্লুটুথ কানের পিসও রশ্মি/তাপ ছড়ায় কিন্তু এটি ১০০ গুণ কম আপনি একটি মোবাইল কানে ধরে রেখে তাপ বিকিরণের চেয়ে। ব্লুটুথ শুধুমাত্র ফিসফিস করে রশ্মি/তাপ বিকিরণ করে আপনার কানে। সমস্যা হলো, অনেকে এটিকে সারাক্ষণ পড়ে থাকে। সেটা করলে ধীরে ধীরে রশ্মি/তাপ বিকিরণ বিরাট সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

(৪) একটি "ফাঁপা টিউব" কানের পিস ("hollow tube" earpiece) ব্যবহার করুন
এটি অন্যান্য সাধারণ তারের কানের পিসের মতই, পার্থক্য হলো শেষ ছয় ইঞ্চির মতো অংশটুকু যা কানের কাছেই, একটি ফাঁপা টিউব। ড. ডেভিড কার্পেন্টারের (আলবানী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ ইন্সটিটিউটের ডিরেক্টর) ভাষায়, "আপনি শব্দটুকু পাচ্ছেন বায়ুর মাধ্যমে। আপনাকে রেডিওফ্রিকুয়েন্সী প্রবাহের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে না।"

(৫) কম তাপ/রশ্মি বিকিরণকারী ফোন ব্যবহার করুন
ফোনের তাপ/রশ্মি বিকিরণ মাপা হয় নির্দিষ্ট শোষণ মাত্রার উপর ভিত্তি করে যাকে বলা হয় SAR (Specific Absorption Rate)। ফোন নেবার পূর্বে SAR যাচাই করে নিন এবং যেটি কম মাত্রায় পাবেন সেটিকেই বেছে নিন।

তথ্যসূত্র: তড়িৎ বার্তা

No comments:

Post a Comment