Wednesday, January 23, 2013

এক জানোয়ারের গল্প

(নটরডেম কলেজে গুহ স্যারের এই একটা ক্লাসে সময় থেমে গিয়েছিল। যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল পুরো ক্লাস)
১৯৭১:
বাচ্চু রাজাকার তখন দিনে দুপুরে মেয়ে ধরে নিয়ে ধর্ষণ করে।দশ বছরের বাচ্চার সামনে ধর্ষণ করতে তার কোন লজ্জা হয়না। ধরে নিয়ে যাওয়া মেয়েদের মধ্যে স্যারের এক শিক্ষিকা (দিদিমণি) ছিলেন।

যুদ্ধের পর:
বঙ্গবন্ধু এসে সম্ভ্রম হারানো বীরাঙ্গনাদের সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের জোড়া বেঁধে দিচ্ছিলেন।বিয়ে করিয়ে দিচ্ছিলেন।
স্যারের ওই দিদিমণি ওখানে ছিলেন না।
হঠাৎ কোথা থেকে এসে বঙ্গবন্ধুর সামনে এসে জামা কাপড় সব খুলে ফেললেন।
চিৎকার করে সবার সামনে বললেন,"আমাকে যে বিয়ে দিবি, আমার সন্তানকে আমি কীভাবে স্তন্য দেব? দেখ! "

জীবনে বোধহয় এতটা ধাক্কা কক্ষনো খাইনি।

জানোয়ারের ফাঁসির আদেশ হয়েছে আজ।
আমি খুশি!!! আমার চিৎকার করে হাসতে ইচ্ছা হচ্ছে,
কারণ আমি ভয় পাই, নাহলে হয়ত ওই দিদিমণির হাহাকার আমার কানে আসবে।
হাহাহাহাহাহাহাহাহাহা!!!

ফাঁসি চাই!!!ফাঁসি!!! 

(লেখক - Jewel Ahmed)

No comments:

Post a Comment