Saturday, July 26, 2014

উলুবেড়িয়ায় হিন্দু পুরুষরা ঘরছাড়া



উলুবেড়িয়া পৌরসভার অন্তর্গত গঙ্গারামপুর ৩ নং কলোনী। হিন্দুরাই মুসলমানদের বাড়ি ভাড়া দিয়েছে ব্যবসা করার জন্য। আজ তারই মাসুল দিতে হচ্ছে সেখানকার হিন্দুদের। গত ১৪ জুলাই সামান্য বিষয়কে কেন্দ্র করে বচসা, মুসলিম দুষ্কৃতিরা দলবেঁধে হামলা করে হিন্দু যুবকদের উপরে। হিন্দু যুবকেরা প্রতিরোধ গড়ে তুললে ছোট খাটো সংঘর্ষ হয়। এর পর স্থানীয় টি এম সি কাউন্সিলর আকবর শেখের ইঙ্গিতে উলুবেড়িয়া থানার পুলিশ শুরু করে ব্যাপক লাঠিচার্জ। পুলিশের এই অন্যায় আচরণে ক্ষুব্ধ হিন্দু যুবকরা প্রতিবাদ করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়। পুলিশের একটা বাইক ভাঙ্গচুর করার অভিযোগে পুলিশ হিন্দুদের বাড়িতে বাড়িতে চড়াও হয়। নির্বিচারে ঘরের জিনিষপত্র ভাঙ্গা হয়। মহিলাদের শারীরিক ভাবে নিগ্রহ করারও অভিযোগ করেছেন স্থানীয় মহিলারা। আট জনের নামসহ মোট ৫০ জনের বিরুদ্ধে এফ আই আর করা হয়েছে,যাদের মধ্যে পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে উলুবেড়িয়া থানার পুলিশ। আর বাকিদের ধরার অজুহাতে হিন্দু পুরুষদের তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে পুলিশ। সেই ভয়ে ৩ নং কলোনীর সমস্ত হিন্দু পুরুষ ঘরছাড়া। শুধু সন্ত্রস্ত মহিলা ও শিশুরা বাড়িতে আছে। মুসলিম ভোট ব্যাঙ্ককে তুষ্ট করতে এইভাবে হিন্দুদের মনে ত্রাস সৃষ্টি করাই শাসক দলের গেমপ্ল্যান। হিন্দু সংহতির সহ-সভাপতি এডভোকেট ব্রজেন্দ্রনাথ রায় এবং বিকর্ণ নস্করের নেতৃত্বাধীন সংহতির প্রতিনিধিদল গত ১৬ জুলাই এলাকা পরিদর্শন করেন এবং স্থানীয় লোকেদের সাথে কথাবার্তা বলেন।
বাম আমলে ফরওয়ার্ড ব্লকের মন্ত্রী রবীন ঘোষের দ্বারা মুসলিম তোষণ চূড়ান্ত আকার ধারণ করেছিল এই উলুবেড়িয়াতেই। মুসলিম তোষণের সেই ব্যাটন এখন হাতে তুলে নিয়েছেন সুলতান আহমেদ ও ইকবাল আহমেদ পরিচালিত তৃনমূল কংগ্রেস। পাশেই পাঁচলায় হিন্দুরা বার বার আক্রান্ত হয়েছে। সমগ্র হাওড়া জেলার মানুষ এখন দিন গুনছে।

(সূত্র

আর আমরা কাঁদছি শুধু ফিলিস্তিনি-ইসরাইলীদের হানাহানি দেখে।
আগে আপন চরকায় তেল দাও হে বঙ্গবাসী 

No comments:

Post a Comment