Thursday, August 07, 2014

মানবতা ... হায় রে মানবতা!

ফিলিস্তিন-ইসরাইল যুদ্ধ নিয়ে সারা বিশ্ব তোলপাড়। মুসলিম দেশগুলোর পাশাপাশি অমুসলিম দেশগুলোও ফিলিস্তিনীদের প্রতি সহানুভূতি দেখাচ্ছে। বাংলাদেশ সরকার ইতিমধ্যেই ইসরাইলের হামলার নিন্দা জানিয়েছে। শিবির কর্মীরা দেশের বিভিন্ন স্থানে ইসরাইল বিরোধী মিছিল করেছে। ফেসবুক,টুইটার সহ সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিতে ইসরায়েলী পণ্য বর্জনের আহবান জানাচ্ছে মুসলিমরা। সেইসঙ্গে তথাকথিত মানবতাবাদী বাস্তবে ভন্ড বাম হিন্দু নাস্তিকগুলোও শুইন্যা মুসলমানের মতো লাফাচ্ছে। ফিলিস্তিনের উপর হামলায় যেন তারায় বেশি ব্যাথিত!

ইসরায়েলী হামলায় ফিলিস্তিনীদের উপর আমার ক্ষুদ্র সহানুভূতি থাকলেও এদেশীয় মুসলিম ও ভন্ড মানবতাবাদী বামেদের উপর ঘৃণা আরো বাড়ছে! এতোদিন ভাবতাম মুসলমানরা হয়তো তাদের ধর্মের টানে ফিলিস্তিনীদের করুণ অবস্থা দেখে দুঃখ পাচ্ছে। কিন্তু না! ওরা আসলে ধর্মবিদ্বেষের কারণেই ফিলিস্তিনী ইস্যুতে এতটা তৎপরতা দেখাচ্ছে।
ধর্মের টানেই যদি ওরা ফিলিস্তিনীদের জন্য কাঁদত তবে আজ পাকিস্তানের একটি শহরে শক্তিশালী বোমা হামলায় যে ৯০ জন্য নিরীহ মুসলমান মারা গেল, লিবিয়াতে গাড়ি বোমা বিষ্ফরণে যে ৬ জন নিরীহ মুসলমান মারা গেল তাদের মৃত্যুতেও ওরা সমান ব্যথিত হত। তাই ওদের আহাজারি দেখে আমার সহানুভূতির বদলে ঘৃণা বৃদ্ধি পাচ্ছে!
ফিলিস্তিন-ইসরাইল নতুন যে যুদ্ধের সূচনা হয়েছে এর শুরুটা করেছে কিন্তু ফিলিস্তিনীই। হামাসের রকেট হামলায় তিনজন ইসরায়েলী যুবক মারা যাওয়ার পরেই ইসরাইল ফিলিস্তিনের উপর হামলা চালায়। এই পর্যন্ত হামাস শতাধিক রকেল হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলের উপর। ইসরায়েলের হামলায় এই পর্যন্ত মাত্র ১৮০ জন ফিলিস্তিনী মারা গেছে আর তাতেই মুসলিম বিশ্ব তোলপাড়! মাত্র বললাম এই কারণে যে মুসলিম দেশগুলিতে প্রতিদিন এর চেয়ে বেশি মানুষ মারা যায় জঙ্গীদের হামলায়। যেমন আজ পাকিস্তানে বোমা বিষ্ফরণে ৯০ জন সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছে।
ইসরায়েলী হামলার নামে ইন্টারনেটে যেসব ছবি ছড়ানো হচ্ছে তারা অধিকাংশই ফেক। ইরাক,ইরান,পাকিস্তান,সিরিয়া ইত্যাদি মুসলিম দেশে জঙ্গীদের হামলায় নিহত শিশুদের ছবি ছড়ানো হচ্ছে ইসরায়েলীদের বর্বরতা বলে কিন্তু বাস্তবে এগুলি মুসলিমদেরই বর্বরতার নমুনা।
অনেকে দেখছি ইসরায়েলী তথা ইহুদীদের পণ্য বর্জনের আহবান জানাচ্ছেন। অমুসলিম দেশের পণ্য বর্জন করলে মুসলিমদের কেবলমাত্র খনিজ তেল খেয়ে বেঁচে থাকতে হবে তা এই মূর্খগুলো জানে না! বর্তমানে সারাবিশ্বের ইহুদীদের একত্রিত করলে তা দেড় কোটিও পূর্ণ হবে না যারমধ্যে প্রায় ৮০ লাখ ইহুদীর বাস ইসরাইলে। অথচ দেড়শো কোটি মুসলিম এই দেড় কোটি ইহুদির কাছে অসহায়! কারণ ইহুদীদের মতো সাহসী,বুদ্ধিমান ও একতাবদ্ধ জাতি বিশ্বে আর দ্বিতীয়টি নেই। ৭০০ কোটি মানুষের পৃথিবীতে দেড় কোটি ইহুদীদের প্রায় ৩০ শতাংশ নোবেল বিজয় প্রমাণ করে ইহুদীরা কতোটা বুদ্ধিমান ও উন্নত জাতি। আর এই ইহুদীরায় নাকি মুসলমানদের প্রধান শত্রু! মানবকল্যাণে ১৫০ কোটি মুসলমানের চেয়ে ১.৫ কোটি ইহুদীর জীবনের মূল্য অধিক।
পরিশেষে একটি কথায় বলব, যে ধর্মানুসারীরা নিজ স্বজাতির ৩০ লাখ মানুষের হত্যাকারীকে বন্ধু রূপে গ্রহণ করে নেয় স্রেফ ধর্মের অজুহাতে আর সেই তুলনায় অতিক্ষূদ্র কারণেই বিধর্মীদের প্রতি বিদ্বেষ রাখে তাদের কেবল ঘৃণায় করা চলে। এরা মানব সমাজে মহামারী ছড়ানো ভাইরাস ছাড়া আর কিছুই নয়।

(Source)

No comments:

Post a Comment