Tuesday, July 28, 2015

বাঙালি মুসলমানের মন!


ঘটনা ১
সেদিন একটা ছবি পোস্ট করলাম। ছবিটি একটা কার্টুন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, কিছু লোক একটা মূর্তির পুজো করছে, মুসলমানরা তা নিয়ে হাসাহাসি করছে। পাশের ছবিতে মুসলমানরা কাবাকে সিজদা করছে, মূর্তিকে পুজো করা লোকগুলো একইভাবে হাসাহাসি করছে।
এরপরে মুমিন মুসলমানগণ যেই মন্তব্যগুলো করতে লাগলেন, তা হচ্ছে এমনঃ
- মুসলমানরা কাবার পুজা করে না। সম্মানও করে না। কাবাকে সিজদাও করে না। কাবা এইখানে কোন ফ্যাক্টর না। ঐটা সাধারণ একটা ঘর। মুসলমানরা সিজদা করে আল্লাহর। তারা আসলে কাবাকে সম্মান করে না। সমস্ত প্রশংসাই আসলে আল্লাহকে উদ্দেশ্য করে করে। কোন মূর্তি বা ঘরকে সম্মান জানানো শেরেক। ইসলাম ধর্মে শেরেক সর্বোচ্চ অপরাধ।
উপরের মন্তব্য থেকে অর্থাৎ আমরা সিদ্ধান্ত নিতে পারি, কাবা আসলে কোন ফ্যাক্টর না। ওটাকে কেউ সম্মান করে না। ওটাকে সম্মান জানানো শিরক।

ঘটনা ২
সেদিন একটা ছবি পোস্ট করলাম। ছবিটাতে কাবাকে সাত রঙে রঙিন করা হয়েছে।
এরপরে মুমিন মুসলমানগণ যেই মন্তব্যগুলো করতে লাগলেন, তা হচ্ছে এমনঃ
- মুসলমানরা কাবাকে সম্মান করে, শ্রদ্ধা করে। আপনি কিছুতেই কাবাকে অসম্মান করতে পারেন না। কাবাকে অসম্মান করে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিতে পারেন না। কাবাকে শ্রদ্ধা জানাতে হবে। আমরা কাবাকে সিজদা করি। আমাদের অনুভূতিকে সম্মান জানাতে হবে। কাবাকে সম্মান করে কথা বলতে হবে।
অর্থাৎ, মুসলমানরা কাবাকে সিজদা করে এবং সম্মান করে।
উপরের ঘটনা দুটো থেকে আমরা কী বুঝলাম?

- আসিফ মহিউদ্দীন 

সংগৃহীত 

No comments:

Post a Comment